মার্জারের পথে কোনোভাবেই হাঁটবেনা ইস্টবেঙ্গল। চলছে জট-খোলার চেষ্টা। বাস্তবে কতটা সম্ভব?

Published by BADGEB Admin on

Last Updated 9:41 AM 31st July 2020 .

লালহলুদ সমর্থকদের দিন কাটছে উৎকণ্ঠায়। সারা দেশ ধরে নিয়েছে ইস্টবেঙ্গলের এবারেও আইএসএল খেলা হলোনা, তবে সমর্থকরা যেন কিছুতেই এটা মন থেকে মানতে নারাজ। গর্জে উঠেছে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা, উঠেছে সমালোচনার ঝড়, ফলে প্রচন্ড চাপে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা।

প্রসূন বাবুর কোম্পানির সাথে কথা ভেস্তে যাওয়ার পরেও আবার নতুন করে কর্তাদের উদ্যোগে শুরু হয়েছে আলোচনা। তবে সবকিছু বেঁধে যাচ্ছে ওই একটা জায়গাতেই, শেয়ার ছাড়ার বিষয়। এই একটা সাহসিকতার অভাবের জন্য ইস্টবেঙ্গলকে ভুগতে হবে কিনা সেটা সময় বলবে তবে ইস্টবেঙ্গল যদি এবারে আইএসএল খেলতে না পারে তাহলে কর্তাদের যে সমর্থকদের বীভৎস রোষের মুখে পড়তে হবে সেটা তারাও ভালোভাবেই জানেন।

তবে শুধু প্রসূন বাবুর কোম্পানি নয়, ইস্টবেঙ্গল কথা চলছে আরো কিছু কোম্পানির সাথে। অন্যদিকে, হাতে সময় কিন্তু কমে আসছে, এত অল্প সময়ে অদেও কোনো ইনভেস্টর ফাইনাল করে আইএসএল খেলা কতটা বাস্তবে সম্ভব? প্রশ্ন ঘুরছে সমর্থকদের মুখে মুখে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়িয়ে পরা ক্রমাগত ভুয়ো খবরে আরো নাজেহাল ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা। এখানে একটা বিষয় সকলকে আশ্বস্ত করবো, কোনো রকম কোনো দলের সাথে কোনো মার্জার হওয়ার কোনো সম্ভাবনাই নেই, তাই ওই প্রসঙ্গ একেবারে ভুলে যান। এখনো পর্যন্ত আমাদের কাছে থাকা খবর অনুযায়ী কোনো কিছুই ফাইনাল হয়নি, আলোচনা চলছে ইনভেস্টরের সাথে। পয়লা আগস্ট কি কোনো ঘোষণা হওয়ার সম্ভাবনা আছে? না, টেকনিক্যালি সম্ভব নয় এত অল্প সময়ের মধ্যে ইনভেস্টর ফাইনাল করে সরকারি ঘোষণা তাই সম্ভাবনা নেই ।

সমর্থকরা কতদিন অপেক্ষা করবে আর সে ক্ষেত্রে? চার মাস অপেক্ষা করে তারা যে ক্লান্ত। জানা যাচ্ছে যে খুব বেশি হলে ইস্টবেঙ্গল কর্তারা পাবেন আগস্ট মাসের শুধুই প্রথম সপ্তাহটা সময় ইস্টবেঙ্গলের ভাগ্য নির্ধারণের জন্য। তাই, সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটাতে গেলে কর্তাদের এখন ৫ই আগস্ট থেকে ৭ই আগস্টের মধ্যে দু’শো কোটির ব্যাংক গ্যারান্টি দিতে সক্ষম ইনভেস্টর জোগাড় করে তবে এফএসডিএলের কাছে আবেদন জানাতে হবে। তাই, সমর্থকদের উদ্দেশ্যে আমাদের বার্তা, অপপ্রচারে বা গুজবে কান দেবেন না, এখনো পর্যন্ত কিছুই ফাইনাল হয়নি। সামনের পাঁচ থেকে সাত দিন খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু করতে সক্ষম হলে ইস্টবেঙ্গল তবেই খুলতে পারে আইএসএলের দরজা নাহলে সামান্য সম্ভাবনাও এর থাকবেনা। প্রতিবেদন শেষ করার আগে, ক্লাব কর্তাদের কাছে আমাদের অনুরোধ, সমর্থকদের কথা ভেবে একটু সাহসী সিদ্ধান্ত নিন। সাফল্যের অভাবে সমর্থকরা আজ দিশেহারা, তারা নতুন সূর্যোদয়ের অপেক্ষায় আছে, ওদের হতাশ করবেন না, ইস্টবেঙ্গল এবছরে আইএসএল খেলতে না পারলে ক্লাব অন্তত দশ বছর পিছিয়ে যাবে।


0 Comments

Leave a Reply

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap