ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা আশাহত হতে পারেন এই খবর জানলে…

Published by BADGEB Admin on

Last Updated 1:39 PM 20th April 2020 .

ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের মনে এখনো গাঁথা আছে সেই দিনটা যেদিন চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহনবাগান কে মাটি ধরিয়ে ‘স্টেনগান সেলিব্রেশন’ ফেরত দিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল।

সেই দলের, জয়ের অনেক কারিগরকেই ইস্টবেঙ্গল পরের মরশুমে নিজেদের দলে রাখতে ব্যর্থ হয় কোয়েস জামানায়। তবে এই মরশুমে লালরাম চুলোভার দলে ফেরত আসা স্বস্তি দেয় ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের।

যদিও তারা আশাহত হন তাদের নয়নের মনি জবি জাস্টিন ফেরত আসবেন না এটা জানিয়ে দেওয়ার পরে। দুঃখের হয়তো এখানেই শেষ নয় কারণ আরো একটা খবর আমরা দিতে চলেছি যেটা সমর্থকদের দুঃখ কিছুটা হলেও বাড়িয়ে দেবে। জবি কে হারানোর পরে যার দিকে ইস্টবেঙ্গল সমর্থককূল তাকিয়ে ছিল তিনি হলেন ডানমায়াইওয়া রালতে।

তবে আমরা দুঃখের সাথে জানাচ্ছি আমাদের তরফ থেকে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি পরিষ্কার জানান, তার ভাবনায় ইস্টবেঙ্গল আর নেই। কারণ হিসেবে তিনি বলেন, প্রথমত ইস্টবেঙ্গলের দেওয়া আর্থিক প্রস্তাব তার পছন্দ নয়। দ্বিতীয়ত, ইস্টবেঙ্গলের কাছে তিনি ISL খেলার বিষয় গ্যারান্টি চাইলেও সেটা তিনি পাননি এবং তৃতীয়ত দীর্ঘমেয়াদি চুক্তির বিষয়ে একটা জটিলতা (বিষয়টা আমরাও ঠিক বুঝলাম না তাই পরিষ্কারভাবে লিখতে পারলাম না)।

ভবিষ্যতে কি হবে, পরিস্থিতি পাল্টাবে কিনা জানিনা কারণ দলবদলের বাজারে যে কোনো কিছুই হতে পারে কিন্তু আজকের দিনে দাঁড়িয়ে তিনি সাফ জানিয়ে দেন, তিনি আর ইস্টবেঙ্গল নিয়ে ভাবছেন না এবং কর্মকর্তারাও তার সাথে যোগাযোগ করা বন্ধ করে দিয়েছে তাই তিনি অন্য আইএসএল খেলা দলগুলোর সাথে কথা চালাচ্ছেন।

এই পরিস্থিতি আরো একটা প্রশ্ন তুলে দিচ্ছে আমাদের সামনে, ইস্টবেঙ্গল কি অদেও আইএসএল খেলবে? ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল খেলার বিষয় পজিটিভ কথা শুধু মাত্র শোনা যাচ্ছে আমাদের শীর্ষকর্তার মুখ থেকে। তা ছাড়া আমরা যার যার সাথেই যোগাযোগ করেছি (এআইএফএফ, আইএফএ, অন্য আইএসএল দলের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তি, এফএসডিএল এবং দেশের বিখ্যাত সাংবাদিকরা) কেউই আমাদের আশার বাণী শোনাতে পারেননি। এবার দেখার শীর্ষকর্তার কথা মেলে নাকি যেটার উত্তর দেবে শুধু সময় এবং আমাদের অপেক্ষা করা ছাড়া কোনো রাস্তা নেই। প্রতিবেদন শেষ করার আগে একটা উল্লেখযোগ্য বিষয় জানাই, এখনো পর্যন্ত যে যে প্লেয়ারের সাথে ইস্টবেঙ্গল চুক্তিবদ্ধ হয়েছে, কাউকেই কিন্তু আইএসএল খেলার বিষয় কোনো আশ্বাস দেননি কর্মকর্তারা। তবে যেহেতু শীর্ষকর্তা যেভাবে বারংবার সমর্থকদের আশ্বাস দিচ্ছেন তাতে অপেক্ষা করে দেখাই যাক কিভাবে এই অসাধ্য সাধন করেন তিনি এবং তিনি এটা করতে পারলে যে ময়দানের নায়ক হয়ে যাবেন সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা প্রতীক্ষায় আছে ইস্টবেঙ্গলের আইএসএল খেলার বিষয়, আশা করবো কর্মকর্তারা সেটা বুঝতে পারছেন এবং শেষ মুহূর্তে কোনো রকমের কারণ দেখালেও যে সমর্থকদের এবার ভোলানো বা গলানো যাবেনা সেটা বলাইবাহুল্য। অন্তত চুক্তিগুলোর অগ্রগতি এবং একের পর এক ডিল যেভাবে ক্যান্সেল হয়ে যাচ্ছে, তাতে ইস্টবেঙ্গলের আকাশে কালো মেঘ যে জমতে শুরু করেছে সেটা বলাই যায়।


0 Comments

Leave a Reply

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap