প্রাক্তন ইস্টবেঙ্গল ফুটবলারকে পুলিশি হেনস্থা। সরব গোটা দেশের ফুটবল প্রেমী মহল।

Published by BADGEB Admin on

Last Updated 9:07 PM 23rd May 2020 .

মেহেরাজুদ্দিন ওয়াডু। নামটা ভারতীয় ফুটবলে খুব পরিচিত এক নাম। এই কাশ্মীরি ফুটবলারটি সাফল্যের সাথে ভারতীয় ফুটবলে খেলেছেন এক দশকেরও বেশ সময় ধরে। অতীতের ইস্টবেঙ্গল, মোহনবাগান, মহামেডান, সালগাঁওকার থেকে শুরু করে আইএসএলের যুগে চেন্নাইয়ান, মুম্বাই খেলেছেন সব দলেই। জাতীয় দলের জার্সি গায়েও দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার সৌভাগ্য হয়েছে তার। কাশ্মীরি ফুটবল জগতের ‘লিভিং মাইলস্টোন’ মনে করা হয় তাকে।

তাকেই এবার সম্মুখীন হতে হলো অপ্রত্যাশিত এক ঘটনার। তিনি এই লকডাউনে খোঁজ পান যে তার মা অসুস্থ। খবর পাওয়ার সাথে সাথেই তিনি রওনা দেন তার মায়ের উদ্দেশ্যে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে ‘বাদশাহ চক ব্রিজে’ তাকে আটকানো হয়, কারণ জানতে চাওয়া হয় তার যাত্রার। সে সব বুঝিয়ে বললে তাকে ছেড়ে দেওয়া তো হয়ইনি উল্টে হেনস্থা করা শুরু হয়। নানান কুরুচিকর কথাবার্তা এবং কটূক্তি করা শুরু হয় তাকে উদ্দেশ্যে করে। তার গাড়ির চাবি, ফোন সব কিছু কেড়ে নেওয়া হয়। এতটাই খারাপ কথা বলা হয় তাকে যা লেখার অযোগ্য। তাকে ফোন করতেও দেওয়া হয়নি দু’ঘন্টা ধরে, আটকে রাখা হয় তাকে। দু’ঘন্টা পরে তাকে ফোন করতে দেওয়া হয় এবং তারপরেই তিনি ছাড়া পান। এই ব্যবহারে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। পুরো বিষয়টা তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে লেখেন এবং তারপরেই ওঠে প্রতিবাদের ঝড়।

ভারতীয় ফুটবল মহল স্তম্ভিত কাশ্মীর পুলিশের এই ব্যবহার দেখে। তারা ভেবে পাচ্ছেনা যে মানুষটাকে খেলাধুলার জগতে কাশ্মীরের সব থেকে বড় প্রতিনিধি হিসাবে মনে করা হয় তার সাথে কিভাবে এমন আচরণ করতে পারলো কাশ্মীর পুলিশ। যদিও মেহেরাজ কিছুক্ষন আগে আবার সোশ্যাল মিডিয়াতে জানান যে সব কিছু বর্তমানে মিটমাট হয়ে গেছে, তবে ভারতীয় ফুটবলের পরিচিতি বা গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে যে আবারও একটা প্রশ্ন ওঠে গেল তা বলাই যায়।


0 Comments

Leave a Reply

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap