লাল হলুদে জোড়া-ফলা, এখন অপেক্ষা শুধুই বিক্রমের প্রতাপ দেখার।

Published by BADGEB Admin on

Last Updated 2:30 PM 16th May 2020 .

আমরা সকালেই জানিয়েছিলাম যে লাল-হলুদে সই করেছেন রিকি সাবঙ, এবং প্রায় পাকা হারমানপ্রিত সিং। সেই প্রতিবেদনেরই একটা বিস্তৃত রূপ এই প্রতিবেদন, যেখানে আমরা জানাচ্ছি যে দুজনেই এই বছর লাল-হলুদে সই করলেন। এই দুই তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়ের অন্তর্ভুক্তি যে লাল-হলুদকে ভরসা যোগাবে সেটা ধরে নেওয়াই যায়। যদিও সূত্রের খবর অনুযায়ী, সরকারিভাবে এদের নাম এখুনি ঘোষণা করা হবেনা। কিছু চুক্তি সংক্রান্ত বিষয়ে থাকায় তাদের পূর্বের ক্লাব (ইন্ডিয়ান আরোজের) সাথে, এদের নামগুলোও হয়তো জুনেই ঘোষণা করা হবে।

তবে আপামর লাল-হলুদ সমর্থক এখন অপেক্ষা করছে একটাই নাম শোনার ‘বিক্রম প্রতাপ সিং’। তার সাথেও লাল-হলুদ কর্তাদের কথাবার্তা অনেকদূর এগিয়েছে, এবং সব ঠিকঠাক থাকলে তাকেও ইস্টবেঙ্গল জার্সি গায়ে দেখা যাবে। তবে, যেহেতু তার কাছে নানান আইএসএলের ক্লাবেরও প্রস্তাব আছে তাই তিনি এবং তার এজেন্ট পরিস্থিতির উপরে নজর রাখছেন। লাল-হলুদ আইএসএলে খেললে যে তিনি আসবেনই সেটা ধরে নেওয়াই যায়, তার সাথে চুক্তি এখনো না হলেও যেকোনো দিন তা হয়ে যেতে পারে।

লাল-হলুদ কর্তারা শুভ ঘোষের প্রতি ইন্টারেস্ট হারিয়েছেন তার এজেন্ট কোনো রকমের সিদ্ধান্তে আসতে না পারার জন্য অনেকদিন হয়ে গেলেও এবং তারপরেই কর্তারা পুরোপুরিভাবে লড়াইয়ে নেমেছেন বিক্রম প্রতাপ কে নেওয়ার বিষয়। তবে বন্ধুত্বও একটা বড় কারণ হতে পারে তার লাল-হলুদে আসার বিষয়। যেহেতু রিকি এবং হারমানপ্রিত দুজনেই লাল-হলুদে এসে গেলেন তাই তাদের ঘনিষ্ঠ বন্ধু বিক্রম যে লাল-হলুদের দিকে একটু হলেও ঝুঁকে পড়বে সেটা বলাই বাহুল্য।

এছাড়াও শঙ্কর, রফিক, মিরসাদের পর আরো একজন গোলকিপার লাল-হলুদে সই করতে চলেছেন। আরো বেশ কিছু চুক্তি প্রায় পাকা হলেও কিছু অনিবার্য কারণে তাদের নামগুলো বাইরে আসছেনা, অন্তত ক্লাবের সব কর্তারা মুখে কুলুপ এঁটেছেন। জুন মাসের পরে নিশ্চিন্ত হয়ে স্বাধীনভাবে একের পর এক ঘোষণা করাই আসল লক্ষ ক্লাবের।

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap