অবশেষে প্রতীক্ষার অবসান – নতুন যুগের সূচনা লাল হলুদে।

Published by BADGEB on

Last Updated 11:34 AM 27th September 2020 .

সাত্ত্বিক সরকার, BADGEB: সবুরে মেওয়া ফলা হয়তো একেই বলে। দীর্ঘ সাত মাসের অপেক্ষা। অপেক্ষা নয় বরং বলা ভালো পরীক্ষা। কিসের পরীক্ষা? ধৈর্যের পরীক্ষা, মানসিক পরীক্ষা। প্রত্যেকটা দিন যেন একেকটা হার্ডেল।

মার্চ মাসে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের শীর্ষকর্তা সমর্থকদের আশ্বস্ত করেন ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলের অংশগ্রহণের ব্যাপারে। সমর্থকরাও আশ্বস্ত হন। কিন্তু যখন আস্তে আস্তে দিনগুলো কাটতে থাকে, তখন সমর্থকরা ধৈর্য হারানো শুরু করেন। জুলাই মাসে যখন প্রাক্তন ইনভেস্টরদের থেকে স্পোর্টিং রাইট এবং শেয়ার ফেরত পায় ক্লাব, তখন সমর্থকরা ধরে নেন এবার হয়তো ঘোষণা হবে নতুন ইনভেস্টরের নাম। কিন্তু সেই প্রত্যাশা’কে ঢেকে দেয় অনিশ্চয়তার ঘন কালো মেঘ। ইনভেস্টর হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিলেও হঠাৎই সরে আসেন একজন বাঙালি ব্যবসায়ী। প্রসুন মুখার্জির ডিল ক্যান্সেল হওয়ার পর বহু সমর্থকই আশা ছেড়ে দেন। যুক্তি দিয়ে ভেবে দেখলে, সত্যিই খুব ক্ষীণ আশা ছিল ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলের যোগদানের।

ম্যাচটা প্রায় শেষের দিকে। প্রিয় দলটা হারের সামনে দাঁড়িয়ে।চারিদিকে যখন এক অদ্ভুত দমবন্ধ করা পরিবেশ, ঠিক সেই সময় ম্যাচে রদবদল। সেপ্টেম্বর মাসের একদম শুরুতেই সবাই’কে চমকে দিয়ে ইনভেস্টর জোগাড় করে আনেন কর্মকর্তারা। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন স্বয়ং রাজ্যের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী, শ্রীমতী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়। নতুন ইনভেস্টর হিসেবে আগমন ঘটে শ্রী সিমেন্ট’এর। হইচই শুরু হয়ে যায় চারিদিকে। সমর্থকরা আবার আশায় বুক বাঁধেন। মনে পরে যায়,২০১৩ সালের আইএফএ শিল্ডের সেমিফাইনালের কথা।বরিসিচের গোলটা যেন ২রা সেপ্টেম্বর বিকেল চারটে নাগাদ আবার দেখতে পেল লাল হলুদ জনগণ। খেলায় সমতা ফিরল।

তবে সমতায় ফেরার থেকেও দরকারি ছিল জয়। অনবরত আক্রমণ, বিপক্ষকে নাজেহাল করে দেওয়া; কোম্পানি গঠন করে, বিড পেপার তুলে, সেই বিড পেপার জমা দিল ইস্টবেঙ্গল।

সমর্থকরা যখন টেনশনে নখ খাচ্ছেন এবং ভাবছেন যে কবে সরকারি ঘোষণা হবে, ঠিক সেই মুহূর্তে জয়সূচক গোল। এফএসডিএলের সরকারি ঘোষণা। অজস্র মানুষের আনন্দ। কলকাতা শহরের রঙ আজ শুধুই লাল হলুদ। আর কোনো রঙ যেন চোখেই পরছে না। আজকের দিনটার জন্যেই তো সবাই অপেক্ষা করছিলেন। এবার সময় গোটা দেশ’কে দেখানোর যে ইস্টবেঙ্গল কিভাবে শিকার করে।


0 Comments

Leave a Reply

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap