২৭শে মে, ২০২০ : প্রতিদিনের দল বদলের খবর – বিষয় ইস্টবেঙ্গল ক্লাব।

Published by BADGEB Admin on

Last Updated 12:42 PM 27th May 2020 .

২৭শে মে, ২০২০ : ব্যাডজেবের ডট কমের পক্ষ থেকে আমরা নতুন উদ্যোগ নিয়েছে সেটা হয়তো আপনারা ইতিমধ্যেই জেনে গেছেন, এই দল-বদলের মরশুমে চেষ্টা করবো আমরা প্রত্যেকদিন সকালে লাল-হলুদের দল গঠন নিয়ে কিছু খবর দেওয়ার। তবে কোনোদিন যদি কোনো খবর না থাকে, সে ক্ষেত্রে সেদিন আর এই প্রতিবেদনটা আমরা লিখবো না।

প্রথমেই বলে রাখি এখন যে খবরগুলো দেবো সেগুলো দুদিন আগেও কিছুটা আমরা দিয়েছিলাম, তবে আবারও দিতে চলেছি কারণ আমাদের ওয়েবসাইটের কিছু সমস্যার কারণে বিগত ৪৮ ঘন্টার সমস্ত আর্টিকেল মুছে গেছে।

এবার একটা বিষয় পরিষ্কার করি দি সকলের কাছে সেটা হলো আমরা নিজেরা আগে ইস্টবেঙ্গল সমর্থক, তাই ইস্টবেঙ্গল নিয়ে সুন্দর সুন্দর খবর শুনতে আমাদেরও ভালো লাগে। তবে বিষয়টা হলো, আমাদের এই নিউস পোর্টাল তৈরির পিছনে মূল উদ্দেশ্য হলো সঠিক খবরটা (যেটা আমাদের কাছে আছে, এবার সেটা সঠিক না ভুল তা নির্ণয় করার আমরা কেউ নই, নির্ণয় করবেন আপনারা পরিস্থিতির সাথে মিলিয়ে নিয়ে) আপনাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া। আগেরদিন চারদিকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেলো আমাদের খবরের উপরে ভিত্তি করে। অনেকেরই পছন্দ হয়নি আমাদের দেওয়া খবরগুলো এবং তারা প্রতিবাদ শুরু করে। তাদের উদ্দেশ্য অনুরোধ রইলো, আমাদের থেকে আপনার মনের মতো খবরের আশা করবেন না কারণ সব খবর সত্যিই মনের মতো হয়না। আজকে আমরা লিখে দিতেই পারি এ আসছে, ও আসছে, সে আসছে, সবাই খুশি হয়ে যাবে কিন্তু শেষে তারা না এলে আমরাই মিথ্যা প্রমাণিত হবো। ইস্টবেঙ্গল সমর্থক হওয়ার ফলে আমরাও চাই দেশের সব নামকরা প্লেয়াররা আমাদের দলে আসুক, আমাদের জার্সি গায়ে খেলুক কিন্তু সব সময় কি সেটা সম্ভব? নিজেরা ভাবুন।

আজকের খবর গুলো :

  • আমরা আগেরদিনও জানিয়েছিলাম আবারও জানাচ্ছি, আনাসের ইস্টবেঙ্গলে আসার সম্ভাবনা নেই, কারণ দুই পক্ষই ইন্টারেস্ট হারিয়েছে। অন্তত আমাদের কাছে থাকা খবর এমনি।
  • আসলে আমরা আমাদের আগেরদিনের বলা কথাগুলোই পুনরায় লিখছি। দেবজিত মজুমদার বা রেহেনেশের সাথে কথা হলেও তাদের ইস্টবেঙ্গলে আসার সম্ভাবনা কঠিন। কঠিন লিখলাম কারণ, পরিস্থিতি বদলাতে সময় লাগেনা হয়তো তবে আমাদের কাছে থাকা খবর অনুযায়ী তারা আসছেনা।
  • আমরাই লিখেছিলাম যে রিকি সাবঙ এবং হারমানপ্রিত ইস্টবেঙ্গলে সই করে দিয়েছে, যার জন্য আমরা ক্ষমাপ্রার্থী। ওরা ইস্টবেঙ্গলে এখনো সই করেনি এবং বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে ইন্ডিয়ান আরোজের প্লেয়ার পাওয়া বেশ কঠিন ইস্টবেঙ্গলের পক্ষে যতক্ষন না তারা সরকারিভাবে আইএসএলের দল হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটাবে।
  • কর্মকর্তারা মনে করছেন দলগঠনের কাজ প্রায় শেষ। বাস্তবও তাই, অন্তত ভারতীয় লাইন-আপ তৈরির ৮৫% কাজ হয়ে গেছে বলাই যায়। তবে এখনো ৩-৪টা প্লেয়ার নেওয়া হবে এই দলে। ২৭-২৮ জনের ভারতীয় স্কোয়াড বানানো হবে। মিরসাদ বাদে পুরোনো দল থেকে ব্রেন্ডন সই করে দিয়েছে সেটা তিনদিন আগেই জানিয়েছিলাম। রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে সামাদ আলী, আশির আকতার এবং অভিষেক আম্বেকারকে। তাদের রেখে দেওয়া যাবে বলেই খবর।

উঠতিআরো দু-তিনজন প্লেয়ারের সাথে কথা বললেও তাদের নাম প্রকাশ্যে আসেনি তাই আমাদের পক্ষে জানা সম্ভব নয়। ইস্টবেঙ্গল আইলীগ খেলবে না আইএসএল সেটা পরিষ্কার হতে জুন মাস লেগে যাবে। মনে করা হচ্ছে, ক্লাবের পক্ষ থেকে ১০ই জুনের পরে কিছু সরকারি ঘোষণা আসতে পারে। আসলে লকডাউন উঠে গেল বা আরো একটু শিথিল হলে তবেই ক্লাবের তরফ থেকে সরকারিভাবে কিছু জানানো হবে। প্রতিবেদন শেষ করার আগে একটা বিষয় মনে করিয়ে দিতে চাই, অনেকের কথা অনুযায়ী আমাদের এই খবরগুলো ‘নেগেটিভ নিউস‘ তবে আমাদের পক্ষে সত্যিই বোঝা কঠিন যে দল ভিনিত, লিংডো, সেহনাজ, বিকাশ, মিলনদের মতো প্লেয়ারদের সই করিয়েছে, যারা ২৩-২৪ জন প্লেয়ারের নাম ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছে, তারা দুটো-তিনটে উঠতি প্লেয়ার পেলো কি পেলো না তা দিয়ে কিভাবে আইলীগ-আইএসএল বিচার হয়ে যায়। আর সেই মূল্যায়ন যদিও বা আপনারা ব্যক্তিগতভাবে করে থাকেন, সে ক্ষেত্রে দায়ে আমাদের উপরে অনুগ্রহ করে চাপাবেন না। কারণ ইস্টবেঙ্গল কোন লীগ খেলবে সেটা আমরা এখনো সত্যিই জানিনা বা ব্যক্তিগতভাবে কিছু বিশ্বাস থাকলেও যুক্তি বা খবর দিয়ে সেটা প্রমান করার ক্ষমতা আমাদের নেই।


0 Comments

Leave a Reply

0 Shares
Copy link
Powered by Social Snap